পিএমখালীর ডজন মামলার আসামী তাহের-মতী ধরাছোঁয়ার বাইরে!

0
507

সিএনবি,ডেস্ক নিউজঃ

পিএমখালীতে হুমায়ুন কবিরকে প্রকাশে পিটিয়ে হত্যা চেষ্টা করা ডজন মামলার আসামী তাহের-মতী এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়েছে । তবে এ সন্ত্রাসী বাহিনীর অন্যান্য সদস্যদের গ্রেপ্তারের দাবী জানিয়েছে সাধারণ মানুষ।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে তাহের-মতী সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও পৌর মেয়রের ঘনিষ্টজন পরিচয়ে এলাকায় নানা অপকর্ম করে আসছে। তাদের রয়েছে শক্তিশালী সন্ত্রাসী বাহিনী।

আবু তাহের ওরফে তাহেইজ্জ্যা, মতিউর রহমান ওরফে মইত্যা ও আজহার ওই বাহিনীর অন্যতম সদস্য। এই বাহিনী ছিনতাই, ডাকাতি, চাঁদাবাজি, ইয়াবাসহ সন্ত্রাসী কার্যক্রম করে যাচ্ছে বলে জানা গেছে।

সন্ত্রাসী তাহের-মতী গ্রুপের সাথে রয়েছে অস্ত্র ব্যবসায়ীদের গভীর সখ্যতা। সময় অসময়ে অকারণে তার বাহিনীর লোকজন সাধারণ মানুষের উপর হামলে পড়ে। ইউনিয়নের মানুষ এতোদিন বাহিনীর প্রধান কেতা মালেকের কাছে জিম্মি হয়ে ছিল। তাকে গ্রেফতারে এলাকাবাসী অনেকদিন ধরে আন্দোলন করে যাচ্ছিলো। অবশেষে বাহিনী প্রধান গ্রেফতারে এলাকা ফিরে এসেছে শান্তি। স্বাভাবিক হয়েছে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি। তবে মালেক বাহিনীর অন্যতম সদস্য তাহের-মালেক এখনও বহাল তবিয়তে রয়েছে। তাই দ্রুত তাদের আইনের আওতায় আনার দাবি উঠেছে।

গত ৪ জুলাই ইউনিয়নের মৃত মাওলানা কবির আহমদের পুত্র হুমায়ুন কবিরকে পিটিয়ে তার মোটর সাইকেল ও টাকা ছিনিয়ে নেয় তাহের-মতির নেতৃত্বে ১০/১২ জন সন্ত্রাসী।
এ মামলার অন্যান্য আসামীরা হলেন- মালেকের অন্যতম সহযোগী মাছুয়াখালী এলাকার মৃত শফিউল আলমের ছেলে আবু তাহের (৪০), মৃত শফিউল আলমের ছেলে মতিউর রহমান (৩০), আজহার (২৫), আশেক (২৪) অজ্ঞাত আরো ৪/৫ জন।
সূত্র মতে, সন্ত্রাসী বাহিনী তাহের- মতি গ্রুপের বিরুদ্ধে ৫টি মামলায় ওয়ারেন্ট রয়েছে। এছাড়া আরো ৬টিসহ ১১টি মামলা চলমান রয়েছে। মামলা গুলো হলো জিআর ২৮০/১১, জিআর ১৯৬/০২, ২৩৮/-১, ১৪৯/১১, ৭৮/০২, ৪৭৭/০২,২৫৩/০৯, ৩৫১/-১,৫৯৭/১১, ২৯৬/২০ এছাড়া এসটি মামলা গুলো হলো ১৯২/৩,২৫৫/১৩ ইংরেজি।
ডজন মামলার আসামী তাহের -মতী গ্রুপের অন্যান্য সদস্যের দ্রুত গ্রেফতার করা না হলে আবারও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতি হবে বলে শঙ্কা প্রকাশ করে এলাকাবাসী।

article bottom

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here