জামিনে মুক্তি পেলেন ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন

0
101

মোজাম্মেল হক, সিএনবি কক্সবাজার প্রতিনিধি:  অবশেষে জামিনে মুক্তি পেলেন ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন।  ২০১৮ সালের ১৬ অক্টোবর বেসরকারি টেলিভিশন একাত্তরের টকশোতে এক প্রশ্নের জবাবে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগ ওঠে ব্যারিস্টার মইনুলের বিরুদ্ধে। এবং তার সাথে সাথে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরোদ্ধে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্রি মানহানি মামলা করেন এবং তাকে আটক করেন।

বেসরকারি টেলিভিশন একাত্তরের টকশোতে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে জামাতের সাথে সম্পৃক্ততা আছেন কিনা জিজ্ঞেস করলে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে মানহানি মূলক একটি কটুবাক্য করার মাসুদা ভাট্টি তা মেনে নিতে না পেরে তার নামে মানহানি মামলা করেন।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুলকে জামিন দিয়েছেন ঢাকার সিএমএম আদালত।আজ রবিবার (৮ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মহানগর হাকিম তোফাজ্জল হোসেন শুনানি শেষে ৫ হাজার টাকা মুচলেকায় জামিন মঞ্জুর করেন।

ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের পক্ষে জামিন শুনানি করেন আইনজীবী মহিউদ্দিন। ২০১৮ সালের ১৬ অক্টোবর বেসরকারি টেলিভিশন একাত্তরের টকশোতে এক প্রশ্নের জবাবে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগ ওঠে ব্যারিস্টার মইনুলের বিরুদ্ধে। এ ঘটনার জেরে সারাদেশে একের পর এক মামলা দায়ের হতে থাকে। সব মিলিয়ে ২২টি মামলা হয় সাবেক এই তত্ত্বাবধায়ক উপদেষ্টার বিরোদ্ধে। ওই ঘটনায় গত বছরের ২১ অক্টোবর ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন মাসুদা ভাট্টি। ২২ অক্টোবর রাজধানীর উত্তরায় আ স ম আব্দুর রবের বাসা থেকে মইনুলকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে তিনি হাইকোর্ট থেকে জামিন পেয়ে কারাগার থেকে মুক্ত হন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here