আশরাফুল অপরাধী লোকমান কেন নই

0
73

মোজাম্মেল হক,সিএনবি: আইন নাকি সবার জন্য সমান কিন্তু তার সম্পূর্ণ বিপরীত ঘটেছে ক্যাসিনো কেলেংকারীতে জড়িত বিসিবি বোর্ড পরিচালক লোকমান হোসেন ভুঁইয়ার ক্ষেত্রে। মাদক, জোয়া, এবং টাকা পাঁচারের অভিযোগে জেলে গেলেও তিনি এখনো অব্যাহত রয়েছেন বিসিবি’র ফ্যাসিলিটিস কমিটির চেয়ারম্যান পদে। অথচ বাংলাদেশের সাবেক সুপারস্টার ক্রিকেটার আশরাফুলের ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ তার উল্টো।কোন তদন্ত কমিটি এবং ট্রাইবুনাল গঠন না করেই জাতীয় দল থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছিল।

অথচ জোয়া, মাদকের অভিযোগে লোকমান হেসেন ভুঁইয়ার হাতে পুলিশের হাত কড়া থাকলেও বোর্ড সভাপতির নাকি কিছুই করার নাই। এক সপ্তাহ গত হওয়ার পর ও একি পদে তবিয়তে রয়েছেন বিসিবি’র ফ্যাসিলিটিস কমিটির চেয়ারম্যান পদে। 

বাংলায় একটি প্রবাদ রয়েছে “কৃষ্ণ করলে লীলা খেলা আমরা করলে দোষ” এই প্রবাদটি অনায়সে উচ্চারণ করতে পারেন সাবেক ক্রিকেটার আশরাফুল। ৬ বছর আগেই একটি ম্যাচ পাতানোর অভিযোগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে তাকে সাময়িক নিষিদ্ধ করা হয়। অথচ তখন মাত্র তদন্ত কমিটি আর ট্রাইবুনাল গঠন প্রক্রিয়া চলছিল মাত্র। শৃঙ্খলার ব্যাপারে বোর্ডের এমন আপোষহীনতা হিরো থেকে জিরো বানিয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশের সাবেক ক্রিকেট সুপারস্টার মোহাম্মদ আশরাফুল। বিসিবি’র সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের পরিচালক ছিলেন লোকমান হোসেন ভুঁইয়া। আশরাফুলকে শাস্তি প্রদান করা বিচারকরাই এখন কাঁঠগড়ায়। বাসায় মাদক রাখার অভিযোগে তিনি দ্বিতীয় বারের মত রিমান্ডে। আছে জোয়া, ক্যাসিনো, এবং ৪১ কোটি টাকার পাঁচারের অভিযোগ। মুহুর্তের মধ্যে ক্রিকেট বোর্ডের একজন পরিচালক জেলে যাওয়া শিরোনাম হয়েছিল ক্রিকেট বিশ্বে। 

কিন্তু বিসিবি এবার হেঁটেছে আইনের পথে। লোকমান কে নিজের বন্ধু দাবি করে বিসিবি’র সভাপতির বক্তব্য সম্পূর্ণ বিপরীত। তিনি বিভিন্ন মিডিয়াকে বলেন – আমি ব্যক্তিগত ভাবে লোকমান কে চিনি সে কখনো মদ খেতে পারে না, সে কখনো জোয়া খেলতে পারে না। তিনি এই ও বলেন যদি সে অপরাধী প্রমাণিত হয় তাহলে তাকে ছাড় দেয়া হবে না। বোর্ড তার শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ছাড় দেয়ার কোন সুযোগ নাই। 

এদিকে লোকমান হোসেন ভুঁইয়া বিসিবি’র গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাসিলিটিস কমিটির চেয়ারম্যান। তার মানে কারাগারে থাকা অবস্থায় ও তিনি ফ্যাসিলিটির যাবতীয় কাগজ পত্রের সাইন সাক্ষর করতে পারবেন। শুধুই তাই নই শেখ হাসিনার পূ্বাচলের ক্রিকেট স্টেডিয়াম তৈরির গুরুত্বপূর্ণ কমিটির ৫ জনের মধ্যে একজন সদস্য।  

তাইতো কোটি ক্রিকেট ভক্তের প্রশ্ন আশরাফুলের মত একজন বাংলাদেশের সময়ের মাঠ কাঁপানো সুপারস্টার শাস্তি পেলে তাহলে লোকমান হোসেন ভুঁইয়া কে কেন পাপ মুক্ত করার চেষ্টা চলছে।  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here